2024 Gold Fish Farming Business Idea in Bengali

Palash Farming Business Idea in Bengali – গোল্ড ফিস কি? গোল্ড ফিস চাষের ব্যবসা শুরু করবেন কিভাবে? গোল্ড ফিস ব্যবসার কত চাহিদা? কত টাকা ইনকাম হবে? জানুন সবকিছু গোল্ড ফিস চাষের ব্যবসা সম্পর্কে।

দিন বদলের সাথে সাথে মানুষ ভীষণ সৌখিন হয়ে উঠছে। আর এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যাঁরা ঘর সাজাতে পছন্দ করেন, তাই দৃষ্টিনন্দন এমন অনেক জিনিসপত্র দিয়ে ঘর সাজিয়ে থাকেন। তাছাড়া এমন অনেকবারই দেখা যায় যেখানে মাছের অ্যাকোয়ারিয়াম (Aquarium) রয়েছে। ছোট থেকে বড় বিভিন্ন সাইজের অ্যাকোয়ারিয়াম পাওয়া যায় বাজারে।

এমনও দেখা যায় অনেক বড় আকারের অ্যাকোয়ারিয়াম রয়েছে অনেক বাড়িতে। আর তার মধ্যে বিভিন্ন রংবেরঙের মাছ দেখা যায়, তার মধ্যে সবথেকে বেশি চোখে পড়ে গোল্ডেন ফিস। সোনালী রঙের এই মাছ তার রং, বড় বড় পাখনা গুলি দিয়ে সকলের মন জয় করে নিয়েছে। আর এই মাছ খুবই দাম দিয়ে কিনতে হয় দোকান থেকে।

যদি এই গোল্ডেন ফিস অথবা গোল্ড ফিস/সোনালি মাছ যাই বলুন না কেন যদি তার কোন ব্যবসা করা যায় তাহলে খুব তাড়াতাড়ি লাভবান হওয়া যাবে। আরো অন্যান্য মাছের পাশাপাশি অ্যাকোয়ারিয়ামে গোল্ডফিস রাখতে পছন্দ করেন বেশির ভাগ মানুষ।

এছাড়া অনেকে এই মাছকে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে বিশ্বাস করে থাকেন। যদি আপনি এই মাছের চাষ করে থাকেন তাহলে প্রচুর মুনাফা অর্জন করতে পারবেন। বাজারে গোল্ডফিস অনেক বেশি দাম দিয়ে কিনতে হয়।

গোল্ড ফিস (Gold Fish Farming) চাষ করে লাভবান হতে পারেন:

যদি আপনি নতুন বছরে নতুন ভাবে কোন ব্যবসার কথা চিন্তা করে থাকেন তাহলে এই ব্যবসার আইডিয়াটি আপনার পছন্দ হতে পারে। প্রতিনিয়ত এই মাছের চাহিদা বেড়েই চলেছে। অ্যাকোয়ারিয়ামে এই মাছ যেমন শোভা বৃদ্ধি করে তেমনি অনেকের কাছে খুবই পছন্দের। খুবই কম টাকা বিনিয়োগ করে এই মাছ চাষ করতে পারেন আর সেগুলি বিক্রি করে ভালো মুনাফা অর্জন করতে পারবেন।

ঘর কে সুন্দর করে সাজানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের অ্যাকোয়ারিয়াম পাওয়া যায়, গোল অ্যাকোয়ারিয়াম, ছোট বড় বিভিন্ন আকারের অ্যাকোয়ারিয়াম রয়েছে। দেশে অনেক ব্যবসায়ী রয়েছেন যাঁরা এই অ্যাকোয়ারিয়ামের গোল্ড ফিস চাষ করে থাকেন, আর প্রতিমাসে লক্ষ টাকা উপার্জন করেন।

আপনিও কিন্তু এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারবেন খুবই অল্প টাকা বিনিয়োগ করে এবং কম সময়ের মধ্যে, অল্প জায়গা হলেও চলবে অর্থাৎ আপনি ঘরে থেকে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারবেন।

গোল্ড ফিস চাষ করার জন্য কত টাকা বিনিয়োগ করতে হবে:

গোল্ডফিস অথবা সোনালি মাছ চাষ করার জন্য প্রথমে কমপক্ষে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হতে পারে, তাছাড়া যদি আপনি মনে করেন তাহলে ২.৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত প্রয়োজন পড়তে পারে।

এই ব্যবসাটি শুরু করার জন্য আপনার প্রয়োজন পড়বে ১০০ বর্গফুটের একটি অ্যাকোয়ারিয়াম, যেটি আপনাকে কিনে আনতে হবে। এই অ্যাকোয়ারিয়াম কেনার জন্য আপনার প্রয়োজন পড়বে ৫০,০০০ টাকা।

এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা আরো অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে খরচ হবে। এছাড়া মাছের খাবার কেনারও প্রয়োজন রয়েছে। আর এই মাছের খাবার কেনার সময় একটি বিষয় বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে যে মেয়ে মাছ ও পুরুষ মাছ এর অনুপাত ৪:১ হওয়াটা জরুরী। খাবার দেওয়ার সময় থেকে প্রায় ৪ থেকে ৬ মাস পর এই মাছ বিক্রি করার জন্য একেবারে তৈরি।

গোল্ডফিশ এর চাষ করে উপার্জন করবেন কেমন?

ভারতে এমন অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে খুবই বড় আকারে এই সোনালী মাছের চাষ করা হয়ে থাকে। এছাড়া এর সব থেক বড় কারণ হলো বাজারে এর খুবই চাহিদা রয়েছে।

একটি গোল্ড ফিস বাজারে ২,৫০০ টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত দামে বিক্রি হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে ব্যবসার মাধ্যমে এক মাসের মধ্যে লক্ষ টাকা উপার্জন করার সম্ভাবনা রয়েছে।

একটু দেখভাল, একটু যত্ন আর এই সম্বন্ধে একটুখানি তথ্য জোগাড় করে নিতে পারলেই এক লক্ষ টাকা থেকে দেড় লক্ষ টাকার মধ্যে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারবেন আর উপার্জন করতে পারবেন প্রতি মাসে কয়েক লক্ষ টাকা। আশেপাশে প্রচার করতে পারেন আপনার এই ব্যবসার কথা।

এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে আপনি বহুদূর পর্যন্ত এই মাছ পৌঁছে দিতে পারেন। এর পাশাপাশি যদি কুরিয়ার সার্ভিস রাখেন তাহলে তো আরো বেশি লাভবান হতে পারবেন। কেননা এখন মানুষ ঘরে বসে যে কোন জিনিস কেনার আনন্দ উপভোগ করে থাকেন বেশি।

আবার অনেকের কাছে সময় থাকে না বাজারে গিয়ে এই সোনালী মাছ মাছ কিনে আনার। তাঁদের সহযোগিতা করে আপনি আপনার ব্যবসার যেমন উন্নতি ঘটাতে পারবেন তেমনি তাঁদের অ্যাকোয়ারিয়ামকেও সাজিয়ে তুলতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top